1. salmankoeas@gmail.com : admin :
সন্তানসম্ভবা স্ত্রী অধিকার পেতে বিষ হাতে স্বামীর বাড়িতে অনশন - দৈনিক ক্রাইমসিন
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৫:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
মানসিক ভারসাম্যহীন স্বামীকে ফিরিয়ে দিল কাজিপুর থানা পুলিশ অপ-সাংবাদিকতা করার প্রমাণ মিললে বহিস্কার মধুখালীতে ট্রাক চাপায় অটো-ভ্যানচালক নিহত, পথচারী আহত আদালতে হেরে গেলেন ব্যারিস্টার সুমন সর্বোচ্চ নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে দ্বিতীয় ধাপে রাজনগর উপজেলায় ভোট গ্রহন শুরু হয়েছে একজন মানবিক সৎ জনবান্ধব ও নিষ্ঠাবান সফল উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ মোঃ শাহজাহান। নন্দীগ্রামে লুন্ঠিত ট্রাকভর্তি ধান পাবনায় উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩ মধুখালীতে সড়ক দুর্ঘটনায় হেলপার নিহত । কাজিপুরের ছালাভরা এখন “ফার্নিচার গ্রাম” নামে পরিচিত ফরিদপুর সদরে সামচুল, মধুখালীতে মুরাদ ও চরভদ্রাসনে আনোয়ার বিজয়ী

সন্তানসম্ভবা স্ত্রী অধিকার পেতে বিষ হাতে স্বামীর বাড়িতে অনশন

ক্রাইমসিন নিউজ ডেক্স :
  • Update Time : সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৭০ Time View
সন্তানসম্ভবা স্ত্রী অধিকার পেতে বিষ হাতে স্বামীর বাড়িতে অনশন

ক্রাইমসিন নিউজ ডেক্স :

দুজন ছিলেন পাশাপাশি গ্রামের বাসিন্দা।হঠাৎ একদিন মোবাইল নাম্বার দেওয়া নেওয়া হয়। এরপর মন দেওয়া-নেওয়া।

প্রেম যখন তুঙ্গে, তখন তারা সিদ্ধান্ত নেন বিয়ে করার।যেই ভাবনা সেই কাজ।হবিগঞ্জ শহরের একটি কাজি অফিসে গিয়ে চার লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে বিয়ে করেন তারা।

বিয়ের পরে এখন সন্তানসম্ভবা ।এরপর মেয়েটি তার সামাজিক স্বীকৃতির জন্য স্বামীকে বলেন। এতেই ঘটে বিপত্তি। স্ত্রীকে সামাজিক স্বীকৃতি দিতে রাজি নয় ছেলের পরিবার। খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন,ওই ছেলের বাবা-মা একটি মহল ওই মেয়েকে সামাজিক স্বীকৃতি না দিতে প্ররোচনা দিচ্ছেন।প্রথমে ছেলে তার স্ত্রীকে তুলতে রাজি ছিলেন এমনকি নিজের পরিবারকে রাজি করাতে  বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টাও করেছিলেন। এখন সেও পারিবারিক চাপে ও লোকমুখের কথায় স্ত্রীকে ঘরে তুলছেন না।

অবশেষে স্ত্রী বাধ্য হয়ে নিজের স্বীকৃতি পেতে স্বামীর বাড়িতে বিষহাতে অনশন শুরু করেন মেয়েটি।

ঘটনাটি ঘটেছে হবিগঞ্জের মাধবপুর  উপজেলার ছাতিয়াইন ইউনিয়ের এক্তিয়ারপুর গ্রামে। অভিযুক্ত স্বামী আরব আলী ওই গ্রামের জমির আলী ছেলে ।ভুক্তভোগী নারীর নাম ডলি আক্তার তিনি একই ইউনিয়নের দাশপাড়া গ্রামের দিলু মিয়ার কন্যা।গতকাল সোমবার(১৫ এপ্রিল)থেকে প্রথমে বিষহাতে নিয়ে স্বামীর বাড়িতে অনশন শুরু করেন।তার স্বামীর অধিকার ফেরত পাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত ওই স্থান ত্যাগ করবেন না বলে জানান।

ডলি আক্তাত আরো বলেন, আমার এবং আমার অনাগত সন্তানের স্বীকৃতি না দেওয়া পর্যন্ত এখান থেকে যাব না।আমার স্বামী আমাকে ঘরে তুলতে চায় কিন্তু একটি মহল আমার স্বামীকে কু পরামর্শ দিচ্ছে আমার নামে অপবাদ রটাচ্ছে।বলছে আমি নাকি জোরপূর্বক স্বামীকে কাবিননামায় স্বাক্ষর করাতে বাধ্য করিয়েছি। আমার এখন কোথাও যাওয়ার জায়গা নেই।আমি স্বামীর ঘরে যাব না হয় যাব পরপারে।আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এর ন্যায় বিচার চাই।

আরব সঙ্গে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি ঘটনা স্বীকার করে বলেন, আমরা দ্রুত এ বিষয়ের সমাধান করবো।

এদিকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন কাসেদ ও ইউপি সদস্য আব্দুর রউফ ওই নারীর চরিত্র নিয়ে নেতিবাচক  অভিযোগ এনেছেন।ওই নারীর চরিত্র হরনের চেষ্টা করছেন চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন কাসেদ বলেন:মেয়েটি উদ্দেশ্য ভালো নয় তার নামে অসামাজিক কর্মকান্ডের অভিযোগ রয়েছে।এক শ্রেনীর লোক বিয়ের নামে মানুষের সাথে অর্থ আয়ের ব্যবসা করে। সেও ওই প্রকৃতির।তারপরে বিষয়টি আমরা মিমাংশা করার চেষ্টা করবো।

মাধবপুরের মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা পেয়ারা বেগম জানান,ডলি আক্তাররের বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। কাবিননামা ও যাবতীয় প্রমাণ থাকার সত্ত্বেও স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি না দেওয়া এক ধরনের অপরাধ।আমি ঘটনাস্থল ঘুরে এসেছি।সার্বিক আইনি সহযোগিতার জন্যে চেষ্টা চালাচ্ছি।

 

মাধবপুর থানা ওসি (তদন্ত)আতিকুর রহমান জানান,থানার একজন সাব ইন্সপেক্টর গঠনস্থলে কাজ করছেন। অনাকাঙ্ক্ষিত কোন ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্য আমরা সূক্ষ্ম দৃষ্টি রাখছি।এ ব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

আপনার প্রতিষ্টানের বিশ্বব্যাপি প্রচারের জন্য বিজ্ঞাপন দিন

© All rights reserved © 2023 দৈনিক ক্রাইমসিন
Theme Customized BY ITPolly.Com